Krishna vs Arjun @ Gita Gurudeb Photo Gurudeb Photo

শ্রীমৎ আচার্য বিবেকানন্দ গোস্বামী

-এর স্বহস্তে লিখিত গ্রন্থ
মৃত্যু হতে অমৃতলোকে

  ভাববার বিষয়  

       একবার ভেবে দেখবেন যে কত পরিশ্রম, কত কষ্ট করে ধন উপার্জন করে সঞ্চয় করেছেন। আপনি মরে গেলে স্ত্রী পুত্রাদি অর্থের জন্য কষ্ট পাবে না, সুখে থাকবে এই আশায় অর্থ সংগ্রহ ও ভোগবিলাস করেই জীবন কাটাচ্ছেন। কিন্তু আপনি যখন সেই অজ্ঞাত প্রদেশে চলে যাবেন, তখন পথ খরচ বলেও একটি পয়সা ও সঙ্গে নিয়ে যেতে পারবেন না। স্ত্রী-পুত্রাদি কেহই তো সঙ্গে যাবে না। সঙ্গে যাবে কেবল আপনার কর্ম এবং কর্মানু্যায়ীই ফলপ্রাপ্ত হবেন। এখানে অধর্ম করে যে সকল পাপ করেছেন, তার জন্য যখন শাস্তি ভোগ করবেন তখন স্ত্রী-পুত্র, ধন-জন, লোক-লস্কর কারো দ্বারা কোন উপকার পাবেন না। নিজেই কেবল যন্ত্রনা ভোগ করে চক্ষুর জলে বক্ষ ভাসাবেন। এই যে অধর্মের আশ্রয় করে পরের অনিষ্ট করে অর্থ উপার্জন ও সঞ্চয় করেছেন, এখন ঐ অর্থ দ্বারা আপনার কোন উপকার হবে না আর অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে যে অধর্ম করেছেন তারজন্য তীব্র যাতনা ভোগ করবেন। হায়! এমন সাধের অর্থ তার এক কপর্দ্দকও সঙ্গে যাবে না।

      বরং দারিদ্রমন্যায়, প্রভাবাদ বিভবাদপি, ক্ষীনতা পানতাদেহে পানতা ততু রোগজ বরং দরিদ্র হয়ে দুঃখে থাকা ভাল, তথাপি অন্যায় উপায়ে বিভবশালী হওয়া ভাল নয়। সুস্থ ক্ষীণ শরীরও ভাল, তথাপি রোগে ফুলে মোটা হওয়া ভালো নয়। সুতরাং অন্যায় উপায়ে ধন ও উপার্জ্জন করা অকর্ত্তব্য। হায়! এমন সাধের অর্থ তার এক কপর্দ্দকও সঙ্গে যাবে না। তাই শাস্ত্রে বলেছেন-
এক এবসুহৃদ্দর্ম্ম নিধনেহপ্যনুযাতি যঃ...........................।
অর্থাৎ ধন-মান, বিষয়-আশয়, স্ত্রী-পুত্র, বন্ধু-বান্ধব সকলেই শরীরের সাথে নষ্ট হয়ে যায়। ধর্মই কেবল একমাত্র সুহৃদ, কেননা ধর্ম মৃত্যুর পরেও আমাদের সঙ্গে গমন করেন।

      শাস্ত্রে আরো বলেছেন যে, ধনই বল, আর জনই বল পদ্মপত্রের মধ্যে জলবিন্দুর ন্যায় সকলই চঞ্চল। অতএব ধর্মাচারণ কর। শ্রুতি স্মৃতিতে যে বিহিত ধর্মে নির্দ্দিষ্ট আছে মনুষ্য যদি তদনুযায়ী কার্য্য করে, তা ইহকালে কীর্তি ও পরকালের অনন্ত সুখের অধিকারী হয়। এই সুদুর্লভ মানব দেহ ধারণ করে যে ব্যক্তি ধর্ম উপার্জন করতে পারল না তার জীবন বৃথা এবং সে ব্যক্তি ইহ পরকালে দুঃখ ভোগ করে থাকে/আদিত্য পুরানে ব্যক্ত আছে।

মনুষ্য যং সমাসাদ্য স্বর্গ মোক্ষপ্রদায়কম্,
দ্বয়োর্নোসাধ্যয় ত্যেকংসঃ মৃতস্তপ্যতেচিরম্ ।।
      স্বর্গ-মোক্ষ প্রদায়ক মনুষ্য জন্মগ্রহন করে যে ব্যক্তি দুয়ের একটিও সাধন না করল, সে মৃত্যুর পর দারুন অনুতাপগ্রস্ত হয়। মহাভারতে আছে-
যস্যত্রিবর্গ শন্যস্য দিনান্যায়ন্তি যন্তিচ,
ন লৌহাকার ভস্ত্রের স সন্নিপন জীবতি।
ধর্ম্মোপার্জন না করে যে ব্যক্তির দিন আসছে ও যাচ্ছে; কর্মকারের

পূর্ববর্তী পৃষ্ঠা - পরবর্তী পৃষ্ঠা -


জয় রাধে শ্যাম

   Contact No.:- Mobile No. / Phone No.  

Useful Phone No. of Bangladesh

      Phone No. of Bangladesh      

সাইট-টি আপনার ভাল নাও লাগতে পারে, তবুও লাইক দিয়ে উৎসাহিত করুনঃ

শেয়ার করে প্রচারে অবদান রাখতে পারেন