ঘুমের মাঝে মানুষ নানা প্রকারের স্বপ্ন দেখে৷ দিন-ক্ষণ, তিথি-নক্ষত্র ইত্যাদির প্রেক্ষিতে এসমস্ত স্বপ্নের ফল কখনো কখনো সত্যি হয়। কোন পক্ষে, কোন দিবসে, কোন সময়ে কিরূপ অবস্থায় স্বপ্ন দেখিলে কিরূপ ফললাভ হয়, সুদর্শন ডাইরেক্টরী পঞ্জিকা অনুসারে তাহা নিম্নে প্রদত্ত হইল। এছাড়াও দেখতে পারেন তিলতত্ত্ব , যতুকতত্ত্ব ও কম্পন বৃত্তান্ত ।

শুক্লপক্ষেঃ

শুক্লপক্ষের প্রতিপদে স্বপ্ন দেখিলে বিলম্বে ফলোদয় হয়। চতুর্থী, পঞ্চমী, ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমীর স্বপ্ন মিথ্যা হইয়া থাকে। পূর্ণিমার স্বপ্ন সম্পূর্ণ সফল হইয়া থাকে।

কৃষ্ণপক্ষেঃ

প্রতিপদের স্বপ্ন নিষ্ফল হয়। দ্বিতীয়ার স্বপ্ন বিলম্বে ফললাভ হয়। তৃতীয়া, চতুর্থী, দ্বাদশী ও নবমীর স্বপ্ন বিপরীত ফল প্রসব করে। অমাবস্যার স্বপ্ন দুঃখের কারণ।

প্রহর নিরূপণঃ

প্রথম প্রহরের স্বপ্ন এক বৎসরের মধ্যে ফললাভ হয়। দ্বিতীয় প্রহরের স্বপ্ন সাত মাসের মধ্যেই ফল প্রসব করে। তৃতীয় প্রহরের স্বপ্ন তিন মাসে ফলপ্রদ, চতুর্থ প্রহরের স্বপ্ন দশ দিনে ফল প্রদান করে- আর প্রভাতকালের স্বপ্ন তিন দিনেই সফল হইয়া থাকে- কিন্তু পুনরায় নিদ্রা গেলে নিষ্ফল হয়।

শয়নবিধানঃ

স্ত্রীলোক শরীরের বাম অংশ ও পুরুষ দক্ষিণাংশ চাপিয়া শয়ন অবস্থায় স্বপ্ন দেখিলে সফল হইয়া থাকে।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ-

যে সকল স্বপ্ন অনিষ্টজনক কেবল সেই সকল স্বপ্নেই পুনঃনিদ্রা যাওয়া কর্তব্য। কারণ নিদ্রায় স্বপ্ন নিষ্ফল হয়। কিন্তু মঙ্গলজনক স্বপ্ন দৃষ্টে পুনঃনিদ্রা গেলে স্বপ্ন নিষ্ফল হয়।
অশ্বথ বৃক্ষে আরোহণের স্বপ্ন দেখিলে ধন ও পুত্র লাভ হইয়া থাকে। আবার কেবলমাত্র অশ্বথ বৃক্ষ স্বপ্ন দেখিলে অর্থ ও মিত্রলাভ হইয়া থাকে।
স্বপ্নে আসনে উপবিষ্ট রহিয়াছি এরূপ অবস্থায় নিদ্রাভঙ্গ হইলে কমলা সদয়া জানিবে। আকাশমার্গে নিজেকে ভ্রাম্যমাণ স্বপ্নদৃষ্টে প্রবাসবাসী হইবে।
কিন্তু প্রবাসবাসীর এরূপ স্বপ্নদৃষ্ট উন্নতি হইবে। লেখনী, মস্যাধার প্রভৃতির স্বপ্নে শিক্ষা লাভ হয়।
কর্দমের স্বপ্নে ঋণভার বর্ধিত হয়। নিজের ক্রন্দনের স্বপ্নে শুভফল প্রদান করে।
মাথায় টুপি স্বপ্ন দেখিলে বহু লোকের আধিপত্য লাভ, ধনলাভ, আয়ু লাভ হইয়া থাকে। ডাকিনীর স্বপ্নে বিপদের সম্ভাবনা।
প্রাসাদ স্বপ্ন দৃষ্ট হইলে কিঞ্চিৎ ধনলাভ। পাদুকার স্বপ্নে উত্তম স্ত্রীলাভ।
প্রবাস গমনের স্বপ্নে পীড়া। বরফ পানের স্বপ্নে আনন্দ লাভ।
বন্দুক স্বপ্ন দৃষ্টে সন্তোষ লাভ। বমনকরণের স্বপ্নে পীড়াগ্রস্ত হয়।

পশুপক্ষী স্বপ্ন দর্শনেঃ

স্বপ্নে উষ্ট্র দর্শনে অর্থলাভ হইয়া থাকে, কিন্তু উষ্ট্রের আরোহণের স্বপ্ন মৃত্যুর কারণ।
কবুতরের স্বপ্নে লক্ষ্মীদেবীর কৃপা লাভ হয়।
কুকুর ও কুক্কুট এবং বরাহের স্বপ্ন দেখিলে সুকন্যালাভ হয়। ঘোটক স্বপ্নে দেখিলে উচ্চপদ বা অর্থলাভ অথবা কুটুম্ব বৃদ্ধি পায়।
বিড়ালের স্বপ্ন নিজের বাটীতে চুরি বা হঠাৎ বিপদের সম্ভাবনা। বিছা দংশনের স্বপ্নে অর্থ ও যশোলাভ।
বৃষের স্বপ্নে কুটুম্ব বৃদ্ধি হয়। মৎস্যের স্বপ্নে উত্তমা স্ত্রীলাভ হয়, মতান্তরে ব্যাধিলাভ।
মহিষের পৃষ্ঠোপরি নিজেকে আরোহণ করিবার স্বপ্ন দৃষ্টে মৃত্যু। স্বপ্নে অন্যকে সাহায্য করতে দেখিলে - মান-সম্মান লাভের লক্ষণ।

তিলতত্ত্ব , শরীরের কোন স্থানে তিল থাকলে কি নির্দেশ করে

ললাটের দক্ষিণপার্শ্বে নাসার উপরে তিল থাকলে দৈবধন ও যশোলাভের সম্ভাবনা। নেত্রের নিম্নে তিল অধ্যবসায়ীর চিহ্ন।
গণ্ডস্থলে তিল থাকলে কখনই ধনশালী হয় না। নিম্ন ও ওপর ওষ্ঠের তিল বিলাসিতা ও প্রেমিকের চিহ্ন।
এরপর দেখুন-

তিলতত্ত্ব , যতুকতত্ত্ব ও কম্পন বৃত্তান্ত ।

সাইট-টি আপনার ভাল নাও লাগতে পারে, তবুও লাইক দিয়ে উৎসাহিত করুনঃ

শেয়ার করে প্রচারে অবদান রাখতে পারেন