বাংলা সুনির্বাচিত কৌতুক Bangla Selected Jokes

হাসলে নাকি আয়ু বাড়ে- তাই হাসুন, মন খুলে হাসুন, কারণ হাসলে হার্ট / হৃদয় / মন ভালো থাকে => আর মন ভালো- তো সবই ভালো।

অধিকাংশ জোকস অনলাইন থেকে সংগৃহীত- শুধুমাত্র আপনাদের আনন্দ বিধানের জন্যই এই প্রচেষ্টা, কাউকে ছোট বা হেয় করার উদ্দেশ্যে নয় ; তাই এ ব্যাপারে কারো কোন আপত্তি থাকলে এডমিনকে অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

* * * Anupamasite-এ আপনাকে স্বাগতম। আপনার পছন্দমত যে কোন ধরনের লেখা বা কৌতুক পোস্ট করতে পারেন।   মানসম্মত লেখা নামসহ সাইটে স্থায়ীভাবে পাবলিশ করা হয় । ধন্যবাদ * * *

*
38) আমার এত টাকা কোথায় যে বাড়িতে পিকাসোর ছবি থাকবে?
খ্যাতিমান শিল্পী পাবলো পিকাসোর বাড়িতে একদিন এক অতিথি এলেন বেড়াতে। সারা বাড়ি ঘুরে তিনি ভীষণ অবাক। বাড়িতে অনেক কিছুই আছে, কিন্তু পিকাসোর কোনো চিত্রকর্ম নেই। এত বড় একজন শিল্পীর বাড়িতে তাঁর নিজের আঁকা ছবি থাকবে না, এ কেমন কথা! কৌতূহল দমাতে না পেরে তিনি পিকাসোকে জিজ্ঞেস করে বসলেন, ‘কী ব্যাপার, বাড়িতে আপনার আঁকা কোনো ছবি নেই কেন?’ পিকাসো দীর্ঘশ্বাস ফেলে জবাব দিলেন, ‘আমার এত টাকা কোথায় যে বাড়িতে পিকাসোর ছবি থাকবে? তাঁর ছবিগুলোর যে দাম!’


39) সন্তানগুলো উৎপাদনের পদ্ধতি দেখাতে পারি না

সৈয়দ মুজতবা আলী তখন বেশ বিখ্যাত লেখক। প্রতিদিনই তাঁর দর্শন লাভ করতে ভক্তরা বাসায় এসে হাজির হয়। একদিন এক ভক্ত মুজতবা আলীর কাছে জানতে চাইলেন, তিনি কোন বই কী অবস্থায় লিখেছেন। মুজতবা আলী যতই এড়িয়ে যেতে চান, ততই তিনি নাছোড়বান্দা। শেষে মুজতবা আলী সরাসরি উত্তর না দিয়ে বললেন, ‘দেখো, সুইস মনস্তত্ত্ববিদ কার্ল গুসতাফ জাং একদা তাঁর ডায়েরিতে লিখে রেখেছিলেন, কিছু লোক আমাকে জিজ্ঞেস করে, আমি কীভাবে লিখি। এ ব্যাপারে আমাকে একটা কথা বলতেই হয়, কেউ চাইলে তাকে আমরা আমাদের সন্তানগুলো দেখাতে পারি, কিন্তু সন্তানগুলো উৎপাদনের পদ্ধতি দেখাতে পারি না।’


40) আজ্ঞে হ্যাঁ। আপনি নিশ্চয় চরিত্রহীন শরৎচন্দ্র?

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় তখন খ্যাতির শীর্ষে। অন্যদিকে একই নামে আরেকজন পণ্ডিত ছিলেন ওপার বাংলায়, তার নাম শরৎচন্দ্র পণ্ডিত, তিনি আবার দাদাঠাকুর নামে ছড়া লিখে খ্যাতির শিখরে। এদিকে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ও চরিত্রহীন উপন্যাসটির কল্যাণে চারদিকে দারুণ জনপ্রিয়। দাদাঠাকুর একটি পত্রিকা সম্পাদনা করতেন, যার নাম বিদূষক। একদিন এক অনুষ্ঠানে দুই শরৎচন্দ্রই ছিলেন আমন্ত্রিত। ইতিমধ্যে দুজনই দুজনের নামের সঙ্গে বেশ পরিচিত কিন্তু সামনাসামনি কেউ কাউকে এর আগে দেখেননি। পরিচয়পর্বে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় রসিকতা করার লোভটা আর সংবরণ করতে পারলেন না। তিনি বললেন, ‘ও, তাহলে আপনিই বুঝি বিদূষক শরৎচন্দ্র!’ দাদাঠাকুরও কম রসিকতা জানতেন না। তিনি পাল্টা বললেন, ‘আজ্ঞে হ্যাঁ। আপনি নিশ্চয় চরিত্রহীন শরৎচন্দ্র?’


41) মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ

২০০৪ সালের নভেম্বরে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ কানাডা সফরে যান। ইরাক অভিযানের কারণে কানাডার সাধারণ মানুষ তাঁর ওপর প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ ছিল। কাজেই তিনি অটোয়া পৌঁছানোর পর ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়েন। হাজার হাজার কানাডীয় রাস্তায় নেমে তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করে। বুশ এতে একটুও ক্ষোভ প্রকাশ না করে বলেন, ‘কানাডীয়দের আতিথেয়তায় আমি মুগ্ধ। আমাকে হাত ছুড়ে বরণ করে নেওয়ার জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই।’


42) নিজের গালে কালিমা লেপন উত্তম

বিখ্যাত কবি ও সমালোচক স্যামুয়েল জনসন খবর পেলেন তাঁর সময়ের একজন নামকরা রাজনৈতিক নারী কলামিস্ট লেখালেখিতে মনোযোগ কিছু কম দিয়ে ইদানীং রূপচর্চায় মেতেছেন। শুনে জনসন মন্তব্য করলেন, ‘অন্যের চরিত্রে কালিমা লেপনের চেয়ে নিজের গালে কালিমা লেপন উত্তম।’


43) সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক

২০০০ সালের মার্চে পপতারকা ম্যাডোনা ঘোষণা করেন, দ্বিতীয় সন্তানের মা হতে যাচ্ছেন তিনি। তাঁর এ ঘোষণা শুনে মার্কিন অভিনেতা ও টিভি উপস্থাপক ক্রেগ কিলবোর্ন মন্তব্য করেন, ‘ম্যাডোনার সন্তানটি যদি ছেলে হয়, তাহলে কখনো কোনো পুরুষের সঙ্গে এটাই হবে তাঁর সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক।’




* * * এসংক্রান্ত আরও মজার কৌতুক =>> * * *


* * * Anupamasite-এ আপনাকে স্বাগতম। আপনার পছন্দমত যে কোন ধরনের লেখা পোস্ট করতে এখানে ক্লিক করুন।   আপনাদের পোস্ট করা লেখাগুলো এই লিংকে আছে, দেখতে এখানে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ * * *

জ্ঞানই শক্তি ! তাই- আগে নিজে জানুন , শেয়ার করে প্রচারের মাধ্যমে অন্যকেও জানতে সাহায্য করুন।

Say something

Please enter name.
Please enter valid email adress.
Please enter your comment.